ফরয নামাযঃ হাদিস-২৩

1 11 2010

হযরত যায়েদ ইবনে সাবেত রদিয়াল্লহু আ’নহু (زيْد بْن ثابتٍ رضى الله عنْه) বলেন, (নবী করীম সল্লাল্লহু আ’লাইহি ওয়া সাল্লামের পক্ষ হইতে) আমাদিগকে হুকুম করা হইয়াছিল যে, আমরা যেন প্রত্যেক নামাযের পর সুবহা’নাল্লহ তেত্রিশ বার, আলহা’মদুলিল্লাহ তেত্রিশ বার এবং আল্লহু আকবার চৌত্রিশ বার পাঠ করি। এক আনসারী সাহাবী রদিয়াল্লহু আ’নহু স্বপ্নে দেখিলেন, কেহ বলিতেছে, তোমদিগকে কি রসুলুল্লহ সল্লাল্লহু আ’লাইহি ওয়া সাল্লাম প্রত্যেক নামাযের পর সুবহা’নাল্লহ তেত্রিশ বার, আলহা’মদুলিল্লাহ তেত্রিশ বার এবং আল্লহু আকবার চৌত্রিশ বার পড়িতে হুকুম দিয়াছেন? উক্ত সাহাবী বলিলেন, হ্যাঁ। সে ব্যক্তি বলিল, প্রত্যেকটি পঁচিশ পড়িয়া উহার সহিত লা-ইলাহা ইল্লাল্লহ পঁচিশ বার বাড়াইয়া লও। সুতরাং সকাল বেলা নবী করীম সল্লাল্লহু আ’লাইহি ওয়া সাল্লামের খেদমতে হাজির হইয়া উক্ত সাহাবী স্বপ্নের কথা বর্ণনা করিলে তিনি বলিলেন, এই রকমই পড়। অর্থাৎ স্বপ্ন অনুযায়ী পড়িবার অনুমতি দান করিলেন। (তিরমিযী)

মুন্তাখাব হাদিস (জানুয়ারী ২০০২) পৃষ্ঠা ১৮২-১৮৩





ফরয নামাযঃ হাদিস-২২

1 11 2010

হযরত আবু সাঈ’দ খুদরী রদিয়াল্লহু আ’নহু (أبى سعيْدٍ الْخدْرىّ رضى الله عنْه) হইতে বর্ণিত আছে যে, তিনি রসুলুল্লহ সল্লাল্লহু আ’লাইহি ওয়া সাল্লাম কে এই এরশাদ করিতে শুনিয়াছেন, পাঁচ ওয়াক্ত নামায উহার মধ্যবর্তী সময়ের জন্য কাফফারহ। (অর্থাৎ এক নামায হইতে অপর নামায পর্যন্ত যত সগীরাহ গুনাহ হয় তাহা নামাযের বরকতে মাফ হইয়া যায়।) অতঃপর রসুলুল্লহ সল্লাল্লহু আ’লাইহি ওয়া সাল্লাম এরশাদ করিলেন, যদি কোন ব্যক্তির একটি কারখানা থাকে এবং সে উহাতে কাজকর্ম করে। তাহার কারখানা ও বাড়ীর পথে পাঁচটি নহর পড়ে। সে যখন কারখানায় কাজ করে তখন তাহার শরীরে ময়লা লাগে অথবা ঘাম বাহির হয়। অতঃপর সে বাড়ী যাইয়ার পথে প্রতিটি নহরে গোসল করিতে করিতে যায়। তাহার (এই বার বার গোসল করিবার দরুন) শরীরে কোন ময়লা থাকে না। নামাযের উদাহরণও তদ্রুপ। যখনই সে কোন গুনাহ করে তখন (নামাযের মধ্যে) দুআ’ এস্তেগফার করার দ্বারা আল্লহ তায়া’লা নামাযের পূর্বে কৃত তাহার সকল গুনাহ মাফ করিয়া দেন। (বাযযার, তাবারানী, মাজমাউয যাওয়ায়েদ)

মুন্তাখাব হাদিস (জানুয়ারী ২০০২) পৃষ্ঠা ১৮১-১৮২





ফরয নামাযঃ হাদিস-২১

1 11 2010

হযরত আবু উমামাহ রদিয়াল্লহু আ’নহু (أبىْ أمامة رضى الله عنْه) বর্ণিত আছে যে,রসুলুল্লহ সল্লাল্লহু আ’লাইহি ওয়া সাল্লামের নিকট জিজ্ঞাসা করা হইল, কোন সময়ের দুআ’ বেশী কবুল হয়? তিনি বলিলেন, রাত্রির শেষের অংশে এবং ফরয নামাযের পরে। (তিরমিযী)

মুন্তাখাব হাদিস (জানুয়ারী ২০০২) পৃষ্ঠা ১৮১





ফরয নামাযঃ হাদিস-২০

1 11 2010

হযরত আবু মালেক আশজাঈ’ রদিয়াল্লহু আ’নহু (أبىْ مالكٍ الّأشْجعىّ رضى الله عنْه) তাঁহার পিতা হইতে বর্ণনা করেন যে, রসুলুল্লহ সল্লাল্লহু আ’লাইহি ওয়া সাল্লামের যুগে কেহ মুসলমান হইলে (সাহাবাহ রদিয়াল্লহু আ’নহুম) তাহাকে সর্বপ্রথম নামায শিক্ষা দিতেন। (তাবারানী)

মুন্তাখাব হাদিস (জানুয়ারী ২০০২) পৃষ্ঠা ১৮১





ফরয নামাযঃ হাদিস-১৯

31 10 2010

হযরত আ’ব্দুল্লহ ইবনে আ’মর রদিয়াল্লহু আ’নহুমা (عبْد الله بنْ عمْرو رضى الله عنْهما) হইতে বর্ণিত আছে যে, একদা নবী করীম সল্লাল্লহু আ’লাইহি ওয়া সাল্লাম নামাযের আলোচনা প্রসঙ্গে এরশাদ করিলেন, যে ব্যক্তি নামাযের এহতেমাম করিবে এই নামায তাহার জন্য কিয়ামাতের দিন নূর হইবে, তাহার (কামেল ঈমানদার হওয়ার) দলীল হইবে এবং কিয়ামাতের দিন আযাব হইতে বাঁচার উপায় হইবে। যে ব্যক্তি নামাযের এহতেমাম করে না তাহার জন্য কিয়ামাতের দিন না নূর হইবে, না তাহার (ঈমানদার হওয়ার) কোন দলীল হইবে, আর না আযাব হইতে বাঁচার কোন উপায় হইবে। সে কিয়ামাতের দিন ফিরআউন, হামান ও উবাহ ইবনে খলাফের সহিত থাকিবে। (মুসনাদে আহমাদ, তাবারানী, মাজমায়ে যাওয়ায়েদ)

মুন্তাখাব হাদিস (জানুয়ারী ২০০২) পৃষ্ঠা ১৮০





ফরয নামাযঃ হাদিস-১৮

31 10 2010

হযরত আবু হুরইরহ রদিয়াল্লহু আ’নহু (أبىْ هريْرة رضى الله عنْه) হইতে বর্ণিত আছে যে, রসুলুল্লহ সল্লাল্লহু আ’লাইহি ওয়া সাল্লাম এরশাদ করিয়াছেন, যে ব্যক্তি এই পাঁচ ওয়াক্ত নামাযের পাবন্দী করে সে আল্লহ তায়া’লার ইবাদাত হইতে গাফেল ব্যক্তিদের মধ্যে গণ্য হয় না। (ইবনে খুযাইমাহ)

মুন্তাখাব হাদিস (জানুয়ারী ২০০২) পৃষ্ঠা ১৮০





ফরয নামাযঃ হাদিস-১৭

31 10 2010

হযরত আবু হুরইরহ রদিয়াল্লহু আ’নহু (أبىْ هريْرة رضى الله عنْه) হইতে বর্ণিত আছে যে, রসুলুল্লহ সল্লাল্লহু আ’লাইহি ওয়া সাল্লাম এরশাদ করিয়াছেন, পাঁচ ওয়াক্ত নামায ও জুমুআ’র নামায বিগত জুমুআ’র নামায পর্যন্ত এবং রমযানের রোযা বিগত রমাদন পর্যন্ত মধ্যবর্তী সকল গুনাহের জন্য কাফফারা হইবে। যদি এই আ’মালসমূহ পালনকারী কবীরা গুনাহ হইতে বাঁচিয়া থাকে । (মুসলিম)

মুন্তাখাব হাদিস (জানুয়ারী ২০০২) পৃষ্ঠা ১৮০








Follow

Get every new post delivered to your Inbox.

Join 61 other followers